সংস্থা সম্পর্কীত তথ্য 

 

সংস্থার ইতিকথা ঃ-

গ্রামীন উন্নয়ন সংস্থা (জিইউএস) নব্বইয়ের দশকের শেষের দিকে কুমিল্লা জেলায় একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হিসেবে কাজ শুরু করে। শুরু থেকে অদ্যাবধি সমাজের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে নিয়ে জিইউএস এর কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। তাঁদের সুখ-দু:খ হাসি-আনন্দ, সাফল্য-ব্যর্থতা, বিপর্যয়-অর্জন সকল অবস্থায় জিইউএস তার অভীষ্ট জনগোষ্ঠীর স্বার্থ রক্ষায় কাজ করছে। প্রাকৃতিক বিপর্যয়, আর্থিক সংকট, রোগে-শোকে, বিপদে-আপদে, শিক্ষা ও সংস্কৃতিতে, জনকল্যাণ ও জনসেবায় জিইউএস সবসময় তার উপকারভোগীদের পাশে দাঁড়িয়েছে। জিইউএস এর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে নিরলস ও নিরন্তর যাত্রা অব্যাহত রাখবে। মানব কল্যাণে, মানুষের স্বার্থে উপকারভোগীদের জীবন যাত্রার মানোন্নয়নে জিইউএস এর অংগীকার সুদৃঢ়।


জিইউএস দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করে সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর ভাগ্যের পরিবর্তন করতে হলে ‘সমন্বিত উন্নয়ন কর্মসূচি’ বাস্তবায়ন ব্যতীত অন্য কোন বিকল্প নেই। তাছাড়া জিইউএস মুলত: সেই সকল সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীকে সহযোগিতা করে যারা নিজেরাই নিজেদের ভাগ্যের পরিবর্তন করে উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ নির্মাণে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ও স্ব-উদ্যোগী। তাই কার্যক্ষেত্রে এর উপর বেশী গুরুত্ব দিয়ে থাকে।

১.০ সংস্থার ভিশন, মিশন, লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্যাবলী:

ভিশন:

দারিদ্রমুক্ত সমাজ গড়া যেখানে সামাজিক সম্পদের ন্যায্য হিস্যা ভোগের মাধ্যমে প্রত্যেকে বসবাস করবে শান্তি ও সাম্প্রদায়িক ঐক্যের মধ্যে।

মিশন:

দারিদ্র দূরীকরণ ও ক্ষমতাহীনদের ক্ষমতায়ন।

লক্ষ্য:
দেশের অবহেলিত, নিঃস্ব, অসহায়, বস্তিবাসী ও দরিদ্র জনগোষ্ঠিকে সংগঠিতকরণের মাধ্যমে তাঁদের মৌলিক চাহিদা পূরণের সাথে সাথে আর্থ-সামাজিক এবং পরিবেশগতভাবে প্রতিষ্ঠিত করে তোলাই সংস্থার একমাত্র লক্ষ্য।

উদ্দেশ্যাবলী:

  •  দারিদ্র বিমোচনের লক্ষ্যে ক্ষুদ্র ঋণ সহায়তার মাধ্যমে স্ব উদ্যোগ ও কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা।
  •  অসহায় ও দুস্থদের উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধি, সঞ্চয়ী তহবিল গঠন এবং উন্নয়নের প্রচেষ্ঠায় আত্মনির্ভরশীলতা অর্জনের লক্ষ্যে সংগঠিত করা।
  •  সুস্থ জীবনের লক্ষ্যে বিশুদ্ধ পানীয় জল, স্বাস্থ্যসম্মত পায়খানা নিশ্চিতকরণ এবং পুষ্টি ও স্বাস্থ্যের পরিচর্যা বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি করা।
  •  প্রশিক্ষণ, উপ-আনুষ্ঠানিক শিক্ষা, কর্মশালা ও বার্ষিক পূণর্মিলনের মাধ্যমে দক্ষতা বৃদ্ধি ও আচরনগত পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে মানব সম্পদের উন্নয়ন করা।
  •  দুঃস্থ ও অসহায় শিশুদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় সহায়তা প্রদান করা।
  •  কম্যুনিটি ডেভেলপমেন্ট এর লক্ষে সৃষ্টিধর্মী ও গবেষণামূলক কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া।
  •  দূর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ জণগোষ্ঠীর জন্য জরুরী ত্রাণ ও পূনর্বাসন সহায়তা প্রদান করা।
  •  অসহায় গরীব মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদেরকে শিক্ষার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে বৃত্তি প্রদান করা।
  •  অস্বচ্ছল, দরিদ্র ও গৃহহীন মানুষের আবাসনের ব্যবস্থা করা।
  •  কৃষি উন্নয়নের জন্য কাজ করা।
  •  দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মাঝে শীত মৌসুমে শীতবস্ত্র বিতরণের ব্যবস্থা করা।
  •  আবহাওয়া ও জলবায়ু পরিবর্তনের লক্ষ্যে কাজ করা।
  •  সহায়তা, সহযোগিতা ও তথ্য আদান-প্রদানের লক্ষে সরকারি-বেসরকারি, দেশীয় ও আন্তর্জাতিক উন্নয়ন প্রতিষ্ঠান/দাতা সংস্থার সাথে যোগাযোগ স্থাপন করা।