সংস্থার ইতিকথাঃ দারিদ্রের প্রপঞ্চসমূহ সবসময়ই উন্নয়নের সম্ভাবনা বহন করে, যদি তাকে কাজে লাগানো যায়। দারিদ্র ভাঙ্গার প্রত্যয়টি সমাজ সংস্কারমূলক ও কিছুটা প্রথা বিরোধী এবং কাজটিতে প্রচুর চ্যালেঞ্জ বিদ্যমান। সাংগঠনিকভাবে টেকসই কমিউনিটি উদ্যোগের অপ্রতুলতা তাদের মধ্যে একটি। আর দারিদ্রকে সাংগঠনিকভাবে মোকাবেলার বিকল্প নেই। বিদ্যমান বাস্তবতা থেকে শিক্ষা নিয়ে অবস্থার উন্নয়নে বিগত শতাব্দীর শেষ দশকে (১৯৯৪ সাল) একদল চেঞ্জমেকার ব্যাপক অংশ গ্রহণমূলক কর্মকান্ডের মাধ্যমে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর আত্মনির্ভরশীলতা ও পরিবেশগতভাবে স্থায়ীত্বশীল উন্নয়ন ধারাকে  সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবার সম্মিলিত প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে পেইজ ডেভেলপমেন্ট সেন্টার নামের সংগঠনটি গড়ে তোলেন। যা সর্ব অবস্থায় দরিদ্র জনগোষ্ঠির সৃজনশক্তি বিকাশের মাধ্যমে আর্থ - সামাজিক ক্ষমতায়নে কাঠামোগত প্রাতিষ্ঠানিক সহযোগিতা নিশ্চিত করবে বলে তাদের বিশ্বাস।

সংস্থার ভিশন, মিশন, উদ্দেশ্যঃ
পেইজ বাংলাদেশে এমন একটি সমাজ প্রতিষ্ঠায় আগ্রহী যা অর্থনৈতিকভাবে উৎপাদনশীল ও সমতা ভিত্তিক, সামাজিকভাবে ন্যায়সংগত এবং পরিবেশগত ভাবে সুস্থ ও টেকসই।

ব্যাপক অংশগ্রহণমূলক কর্মকান্ডের মাধ্যমে দরিদ্র জনগোষ্ঠির আত্মনির্ভরশীল ও পরিবেশগতভাবে স্থায়িত্বশীল উন্নয়ন সাধনে উদ্যোগ গ্রহণ এবং তাদের সৃজনশক্তি বিকাশের মাধ্যমে আর্থ-সামাজিক ক্ষমতায়নে সহায়তা প্রদান করা।

প্রাতিষ্ঠানিক উন্নয়ন,মানব সম্পদ উন্নয়ন,আর্থিক উন্নয়ন এবং পরিবেশ উন্নয়ন।